ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 1 week ago

সমুদ্রের মাংসখেকো পোকা ‘খেয়ে ফেলেছে’ ১৬ বছরের কিশোরের পা! ( ভিডিওসহ)



বাংলা রিপোর্ট ডেস্ক:

গত তিনদিন আগে শনিবার ফুটবল খেলা শেষে স্যাম ব্রাইটনের স্ট্রিট বীচের সমুদ্রে নেমে হালকা গোসল করতে চেয়েছিল। সমুদ্রে নেমে মজা করছেন, আনন্দ করছেন। ১৬ বছর বয়সী অস্ট্রেলিয়ান কিশোর স্যাম ক্যানিজে’র সাথে ঘটেছে ভয়াবহ এ ঘটনা।

সমুদ্রে নামার প্রায় আধা ঘন্টা পরে স্যাম বুঝতে পারে তার পা অবশ হয়ে আসছে। সে মনে করেছিল, অনেকক্ষন যাবত ফুটবল খেলার জন্যে এমনটা হতে পারে। কিন্তু সে যখন ধীরেসুস্থে সমুদ্রের পানি থেকে বালির পাড়ে এসে দাঁড়ায়, তখন সে দেখতে পায় তার দু’টি পা একদম রক্তে ভেসে যাচ্ছে।

স্যাম জানায়, ‘প্রথমে আমি মনে করেছিলেম, আমি হয়ত ভুলবশত কোন পাথরে পা কেটে ফেলেছি। কিন্তু পরে বুঝতে পারলাম, এমন কিছু হয়নি। কারন আমার পায়ের তালু এবং গোড়ালি দুই জায়গাতেই সমানভাবে রক্ত লেগে ছিল। কিন্তু অবশ্যই আমি ভাবতেও পারিনি আমার পা পোকায় খেয়ে ফেলছে!’

স্যাম সমুদ্র থেকে ওঠার পড়ে স্যাম দ্রুত বাসাতে চলে আসে এবং পানি দিয়ে আবারো ভালোমতো পা ধুয়ে ফেলে। কিন্তু তাতে করেও আক্রান্ত স্থান থেক রক্ত পড়া বন্ধ হচ্ছিল না বলে স্যামের বাবা জ্যারোড তাকে হসপিটালে নিয়ে যান।
‘হাসপাতালের ইমারজেন্সি রুম একদম ভর্তি হয়েছিল কারন সবায় ভাবছিল এইখানে হয়তো খুব মজার কিছু হচ্ছে।

স্যামের ক্ষতস্থান হতে শনিবার থেকে সোমবার পর্যন্ত টানা রক্তপাত হতেই থাকে। স্যামের এমন অবস্থায় তার বাবা খুবই চিন্তায় পড়ে যান এবং বুদ্ধি করে কিছু কাঁচা মাংশ এবং একটি তারজালি নিয়ে সমুদ্রের কাছে যান। এবং এরপরে তিনি যা আবিষ্কার করেন তা একদম রীতিমত চমকে দেওয়ার মতো খবর!

‘আমরা নেটের মধ্যে প্রায় হাজারখানেক ছোট্ট জীবন্ত জিনিস পাই। সেগুলোকে আমরা বাসায় নিয়ে আসি এবং খুব ভালোভাবে পর্যবেক্ষনের জন্য সাবা কাচের পাত্রে পানির মধ্যে কাঁচা মাংসের টুকরার সাথে রেখে দেই। অবাক করা বিষয় হলো এক রাতের মধ্যে সেগুলো মাংসের গায়ের সাথে লেগে থেকে মাংস খেয়েছে’। জানান জ্যারোড।

মিউজিয়াম ভিক্টোরিয়া ম্যারিনের বিজ্ঞানী ডা. জেনেফর ওয়াকার স্মিথ সেই ছোট্ট পোকার মতো জিনিসগুলো পরীক্ষা করে জানান, সেগুলো সমুদ্রের পোকা হতে পারে।জেনেফর জানান, স্যামের ক্ষতর জন্যে সমুদ্রের এই পোকাই দায়ী। তিনি জানান এ এতো বেশী পোকার কামড় খুবই অস্বাভাবিক ঘটনা তবে এমন ধরনের সমুদ্রের পোকা অস্ট্রেলিয়া এবং বিশ্বের অন্য দেশেও রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, এমন ধরনের সমুদ্রের পোকা যেকোন সমুদ্রেই পাওয়া যাবে। এক টুকরা কাঁচা মাংশ নিয়ে যেকোন সমুদ্রে গেলেই তাদের দেখা পাওয়া সম্ভব। স্যামের প্রসঙ্গে তিনি বলে, ‘এটা খুবই বিরল একটি ঘটনা। আমার ধারণা স্যাম খুব ভুল সময়ে সমুদ্রের ভুল জায়গাতে ছিল।’

সমুদ্রে সাঁতার কাটতে যান যারা, তাদের জন্য জেনেফর উপদেশ দেন, সমুদ্রে মরা মাছের কাছাকাছি না যেতে কারণ মরা মাছের আশেপাশে এমন ধরনের পোকা বেশী থাকতে পারে।

 

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এমএম