ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 2 months ago

সুন্দরবননির্ভর নারীদের ক্ষমতায়ন ও উৎপাদনমুখী কর্মসংস্থান প্রয়োজন



খুলনা প্রতিনিধি

খুলনায় ‘সুন্দরবননির্ভর নারীদের ক্ষমতায়ন এবং উৎপাদনমুখী কার্যক্রমে সংশ্লিষ্টকরণ’ শীর্ষক কর্মশালা অনু‌ষ্ঠিত হ‌য়ে‌ছে। বৃহস্প‌তিবার মহানগরীর সিএসএস আভা সেন্টা‌রে দিনব্যাপী এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। খুলনা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের সার্বিক সহযোগিতায় ইউএসএইড-এর ‘Climate-Resilient Ecosystems and Livelihoods (CREL)’ প্র‌কল্প এ কর্মশালার আয়োজন করে।

কর্মশালায় প্রধান অ‌তি‌থি ছি‌লেন খুলনা সার্কেলের বন সংরক্ষক মোঃ আমীর হোসাইন চৌধুরী। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তি‌নি বলেন, সুন্দরবনকে রক্ষা করাই আমাদের সকলের লক্ষ্য। এ লক্ষ্য বাস্তবায়নে বন বিভাগ ২০০২ সাল থেকে সুন্দরবননির্ভর নারীদের ক্ষমতায়ন এবং তাদের উৎপাদনমুখী বিভিন্ন কার্যক্রমে সম্পৃক্ত করার উদ্দেশ্যে কাজ করছে। ২০১০ সাল থেকে সরকারি প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি এ কাজে এনজিওকে সম্পৃক্ত করা হয়েছে। সুন্দরবন রক্ষায় অচিরেই ‘সুন্দরবন রক্ষা প্রকল্প’ অনুমোদন লাভ করতে যাচ্ছে। বন বিভাগের পাশাপাশি এতে সমাজসেবা, মহিলা বিষয়ক দপ্তর, যুব উন্নয়ন ও পল্লী উন্নয়ন বোর্ডকে সম্পৃক্ত করে এর কার্যক্রম পরিচালিত হবে। তিনি বনজীবী নারীদের উন্নয়নে জিও-এনজিও সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজ করার আহ্বান জানান।

এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ সাইদুল ইসলাম, কৃষি সম্প্রসারণের উপপরিচালক পঙ্কজ মজুমদার, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নার্গিস ফাতেমা জামিন। কর্মশালাটি পরিচালনা করেন ক্রেল প্রকল্পের কো-অর্ডিনেটর মোঃ তৌহিদুর রহমান। স্বাগত বক্তৃতা করেন ক্রেলের রিজিওনাল কো-অর্ডিনেটর এসএম জিয়াউল হক। কর্মশালায় মহিলা বিষয়ক দপ্তর, সমাজসেবা, যুব উন্নয়ন, বন বিভাগ, তথ্য বিভাগ, পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট এনজিও প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন।

কর্মশালায় অংশগ্রহণকারী অন্যান্য বক্তারা বলেন, প্রথমেই নির্ধারণ করতে হবে সত্যিকার অর্থে কারা সুন্দরবনের ওপর নির্ভরশীল। প্রকৃত নির্ভরশীল জনগোষ্ঠীর ডাটাবেজ তৈরি করে সমন্বয়ের মাধ্যমে প্রশিক্ষণ দেয়া গেলে তাদের যেমন উন্নয়ন হবে, তেমনি তারা থাকবে সুরক্ষিত। প্রশিক্ষিতরা অন্য পেশা গ্রহণের ফলে বনের ওপর তাদের নির্ভরতা কমবে, বন সুরক্ষিত থাকবে। পাশাপাশি বনজীবীদের সন্তানদের শিক্ষিত করার উদ্যোগ নিতে হবে। তারা আরও বলেন, নারীর ক্ষমতায়নে শিক্ষার পাশাপাশি তাদেরকে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী করতে হবে। আর নারীকে স্বাবলম্বী হতে শারীরিক ও মানসিক সুস্থতাও অপরিহার্য। এ জন্য পুরুষের মানসিকতার পরিবর্তনের পাশাপাশি জিও-এনজিওকে অব্যাহতভাবে কাজ করতে হবে।

 

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এমএকে