ব্রেকিং নিউজঃ

মর্যাদার লড়াইয়ে আবাহনীর জয়  ***  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আওয়ামী লীগ নেত্রীকে কুপিয়ে হত্যা  ***  রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের জন্য ছাদহীন খোলা কারাগার, দশকের পর দশক ধরে প্রাতিষ্ঠানিক বর্ণবাদের শিকার এই বাসিন্দারা-অ্যামনেস্টি  ***  জিম্বাবুয়ের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসাবে শুক্রবার শপথ নিতে যাচ্ছেন দেশটির সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট এমারসন নাঙ্গাগওয়া  ***  চট্রগ্রাম বিমানবন্দরে সাড়ে তিন কেজি স্বর্ণসহ এক যাত্রী আটক  ***  সরকার দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করেছে- মির্জা ফখরুল  ***  মানবতাবিরোধী অপরাধে বসনিয়ার ‘সাক্ষাৎ শয়তান’ রাতকো ম্লাদিচের যাবজ্জীবন  ***  দ. কোরিয়ায় পালাতে গিয়ে সহকর্মীদের গুলিতে নিহত উ. কোরীয় সৈনিক  ***  জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট হিসেবে ন্যানগাওয়ের শপথ শুক্রবার, আজ রাতে পালাতে পারেন মুগাবে  ***  কুড়িগ্রামে মৌমাছির কামড়ে ৩৭ জন শিক্ষার্থীসহ আহত অর্ধশতাধিক
Published: 3 months ago

সিপিএলে উপেক্ষিত মিরাজ



ক্রীড়া প্রতিবেদক:
স্বপ্নের ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (সিপিএল) খেলতে গিয়ে জাতীয় দলের তরুণ অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান মিরাজকে এখন অপেক্ষার প্রহর গুণতে হচ্ছে। তাকে কেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে তার দল ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স সেরা একাদশে স্থান দিচ্ছেন না এ নিয়ে খোদ দ্বীপ রাষ্ট্রের ক্রিকেটেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

সিপিএলে অভিষেকের জন্য মিরাজকে আর কত অপেক্ষা করতে হবে আর কত তিনি উপেক্ষিত হবেন এ নিয়ে তার ভক্তদের ধৈর্য্যের বাধ ভেঙে গেছে। শেষ পর্যন্ত তাকে সিপিএলে না খেলেই দেশে ফেরতে হয় কিনি এ নিয়ে চলছে নানা জল্পনা।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) মিরাজকে ১৫ আগস্ট পর্যন্ত সিপিএলে খেলার অনুমতি দিয়েছে। এ সময়ের মধ্যে তিনি খেলতে না পারলে তার সিপিএলে আর খেলাই হচ্ছে না। কারণ অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে হোম সিরিজে তিনি ডাক পেয়েছেন। খেলতে হবে দু’টি টেস্ট। অসি দল ১৮ আগস্ট ঢাকায় আসছে। এর আগেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে উড়ে আসতে হবে এ তরুণ অলরাউন্ডারকে। যোগ দিতে হবে দলের সঙ্গে। কাজেই সিপিএলে মিরাজের অভিষেকটা এখন জরুরি হয়ে দাঁড়িয়েছে। না খেলতে পারলে আক্ষেপ থেকে যাবে।

বর্তমানে সিপিএলে চার ম্যাচে তিন জয় নিয়ে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে অবস্থান করছে। লিগে দলটি টানা চার ম্যাচ খেলে ফেললেও মিরাজকে দর্শক হয়েই মাঠে নিজ দলের ম্যাচ দেখতে হচ্ছে। অনুশীলন করতে করতে আর ম্যাচ খেলার অপেক্ষায় থাকতে থাকতে তিনি হয়তো ক্লান্ত হয়ে পড়ছেন। কবে তিনি ব্যাট হাতে বল হাতে তার ক্যারিশমা দেখাবেন সেটা কেউই বলতে পারছেন না। এদিকে আবার তার দেশে আসার সময়ও দ্রুত এগিয়ে আসছে।
মিরাজ এবারই প্রথমবারের মতো বিদেশি কোনো লিগে খেলতে গিয়েছেন। আপাতত ম্যাচ খেলতে না পারলেও তারকা খেলোয়াড়দের সঙ্গে তিনি সেখানে চমৎকার সময় কাটাচ্ছেন। তিনি ম্যাচ না খেলেও যেমন একটা তৃক্ত অভিজ্ঞতা পাচ্ছেন। তেমনি বিশ্বসেরাদের সংস্পর্শে থাকা, একত্রে অনুশীলন করা, তাদের ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং স্টাইল সরাসরি প্রত্যক্ষ করা, বিভিন্ন দেশের তারকা ক্রিকেটারদের এক দলে খেলা সবকিছুরই তার অভিজ্ঞতা হচ্ছে। মিরাজকে সেরা একাদশে না রাখার কারণটাই বা কি সেটাও স্পষ্ট নয়।

সিপিএলে অপেক্ষাকৃত দুর্বল প্রতিপক্ষ গায়ানা আমাজন ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষেও মিরাজকে নামায়নি তার দল। তাকে নিয়ে কি ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স ভরসা পাচ্ছে না? তবে ক্যারিবিয়ান দলটির ধারণা থাকা উচিত মিরাজ অন্যতম প্রতিশ্রুতিশীল ক্রিকেটার। যার হাত ধরে অনেক স্মরণীয় জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। সে চিন্তাবোধ থেকেও তাকে সেরা একাদশে অন্তত: দু-একটি ম্যাচে সুযোগ দেবার দরকার ছিল। মিরাজ ওয়েস্ট ইন্ডিজে আর যে কয়টি দিন আছেন এরমধ্যে তার সিপিএলে অভিষেকটা হয়ে গেলেই ভালো। অন্তত: বিশ্ববাসী দেখতে পেতেন ভিন দেশের ক্রিকেটে তার জাদুকরী ব্যাটিং-বোলিং। যা তাকে ভবিষ্যতে আইপিএলে খেলার সুযোগ করে দিতে পারতো।

তবে এটাও ঠিক শিরোপা জয়ের লক্ষে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স যেভাবে বিশ্বসেরা তারকাদের দলে ভিড়িয়েছে তাতে কাকে রেখে কাকে নামাবেন এ নিয়ে টিম ম্যানেজমেন্ট সবসময় চাপের মুখে। তারপরও মিরাজ তার স্বপ্নের সিপিএলে জায়গা পেয়েছেন। তাকে নিয়ে চারপাশ আলোচনা হচ্ছে। এটাও এক বড় পাওনা।

সিপিএলে মেহেদী হাসান মিরাজের সতীর্থরা হচ্ছেন- হাশিম আমলা, ডোয়াইন ব্রাভো, কেভন কুপার, নিকিতা মিলার, সুনিল নারিন, অ্যান্ডারসন ফিলিপ, দিনেশ রামদিন, শাদব খান, রন্সফোরর্ড বিটন, ড্যারেন ব্রাভো, হামজা তারিক, ব্রেন্ডন ম্যাককলাম, কলিন মুনরো, উইলিয়ামস পারকিন্স, খারি পিয়েরে, জ্যাভন সিয়ার্লেস।

দলে যেভাবে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স এক ঝাঁক তারকা ভিড়িয়েছে তাতে মিরাজকে হয়তো খেলার জন্য আরো অপেক্ষার প্রহর গুণতে হতে পারে!

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এমএ