ব্রেকিং নিউজঃ

মানবতাবিরোধী অপরাধে বসনিয়ার ‘সাক্ষাৎ শয়তান’ রাতকো ম্লাদিচের যাবজ্জীবন  ***  দ. কোরিয়ায় পালাতে গিয়ে সহকর্মীদের গুলিতে নিহত উ. কোরীয় সৈনিক  ***  জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট হিসেবে ন্যানগাওয়ের শপথ শুক্রবার, আজ রাতে পালাতে পারেন মুগাবে  ***  কুড়িগ্রামে মৌমাছির কামড়ে ৩৭ জন শিক্ষার্থীসহ আহত অর্ধশতাধিক  ***  কুষ্টিয়ায় লিপু হত্যা : ২ আসামির মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত  ***  লেবাননের প্রধানমন্ত্রী হারিরির পদত্যাগ স্থগিত  ***  আগামী বছর ১ ফেব্রুয়ারি থেকে এসএসসি পরীক্ষা শুরু হবে  ***  সরকার নিজের অপকর্মের দায় অন্যের ওপর চাপাচ্ছে: রিজভী  ***  সংসদ নির্বাচনে প্রয়োজনে সেনাবাহিনী নামানো হবে: ইসি শাহাদাত  ***  বিপিএল-এ দু’দিনের বিরতি; ২৪ নভেম্বর থেকে তৃতীয় পর্ব শুরু হবে চট্টগ্রামে
Published: 4 months ago

আফগান সীমান্তে পাকিস্তানের সেনা অভিযান



বাংলা রিপোর্ট ডেস্ক:

পাকিস্তানের সেনাবাহিনী জানিয়েছে, আফগান সীমান্তবর্তী উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় এলাকায় তারা বিশেষ অভিযান শুরু করেছে। ইসলামিক স্টেট অর্থাৎ আইএস দমনেই তাদের এই সাড়াশি অভিযান চলছে বলে সোমবার সেনাবাহিনীর এক মুখপাত্র জানিয়েছেন।
দেশটির সেনা মুখপাত্র জানিয়েছে, আফগান অভ্যন্তরে আইএস-এর এই অংশটি ক্রমশই পাকিস্তানের জন্যে হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছিল। যদিও এতদিন আইএস-এর অস্তিত্ব অস্বীকার করে আসছিল পাকিস্তান।
পাকিস্তান বলছে, আফগানিস্তানের ভেতরে থেকে শক্তিশালী হয়ে ওঠা জঙ্গিগোষ্ঠির প্রভাব ঠেকানোর জন্যেই প্রতিবেশী দেশটির উত্তর-পশ্চিম সীমান্ত এলাকায় ‘খাইবার-ফোর’ শিরোনামে এই অভিযান।

পাকিস্তানের সেনা মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট জেনারেল আসিফ গফুর এই সেনা অভিযানকে পাকিস্তানের জন্যে অত্যন্ত জরুরি উল্লেখ করে বলেন, গত কয়েক মাসে আইএস গোষ্ঠী খাইবার সীমান্তে বেড়ে উঠছিল।


সীমান্তের যে অংশে বিমান বাহিনীর সহায়তায় এই অভিযান পরিচালিত হয়েছে সেটি বেশকিছু উপজাতি গোষ্ঠী অধ্যুষিত এলাকা।

জেনারেল আসিফ গফুর জানিয়েছেন, আইএস’এর এই অংশ পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের সাবেক তালেবান গোষ্ঠীর সদস্যদের নিয়ে গঠিত। তারা মধ্যপ্রাচ্যের আইএস গোষ্ঠীর কেউ নয় বলেই দাবি করেন তিনি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, শুরুতে নিজ ভূখণ্ডে আইএসের অবস্থানের ব্যাপারে অস্বীকার করেছিল পাকিস্তান সরকার। কিন্তু গত দু’বছরে পাকিস্তানে বেশ কিছু হামলার দাবি করে আইএস। ক্রমেই বিস্তারলাভ করা সংগঠনটির ব্যাপারে আফগানিস্তান কিন্তু আগে থেকেই ইসলামাবাদকে সাবধান করে আসছিল।

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এইচএম