ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 3 months ago

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে মুনের ব্যাপক বিজয়



দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রাক্কলিত ফলাফলে জয় পেয়েছেন মুন জেই। এই জয়ের মাধ্যমে এক দশকের রক্ষণশীল শাসনের অবসান হবে এবং উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে সম্পর্কের অভাবনীয় উন্নতি হবার ইঙ্গিত দিয়েছেন আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশ্লেষকগণ। সূত্র এপি।
‘এক্সিট পোল’ আভাস দিয়েছে যে, উদারপন্থী প্রার্থী মুন জিই মঙ্গলবারের ভোটে পার্ক জিইন হেই এর উত্তরসূরি নির্বাচিত হয়েছেন।
সরকারি ফলাফল কয়েক ঘণ্টা বিলম্বে প্রকাশিত হবে। কিন্ত ‘এক্সিট পোলের ৮১,০০০ ভোটারের ৩৩০টি ভোটকেন্দ্র ৩টি টেলিভিশন স্টেশন যৌথ গণনায় ফল প্রকাশ করেছে। তাতে মি. মুন ৪১.৪% ভোট পেয়েছেন। মি. মুনের দুই শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী ‘এক্সিট পোল’ রক্ষণশীল হং জুন পিইও ২৩.৩ শতাংশ এবং সেন্ট্রিস্ট অহল চিউন সু ২১.৮ শতাংশ ভোট পেয়েছেন মর্মে আশা করা হচ্ছে।
এই ফলাফল কিছু সুনির্দিষ্ট ভোটারের একনজরের ফল।
গত সপ্তাহের সার্ভেতে প্রতিফলিত হয় যে, গণতান্ত্রিক পার্টি প্রার্থী ২০ শতাংশ জনপ্রিয়তায় দুই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর তুলনায় অগ্রগামী ছিলেন।
মুনের বিজয়ের মধ্যদিয়ে দশকব্যাপি রক্ষণশীল শাসনের অবসান হবে এবং উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে পারমাণবিক অস্ত্র প্রতিযোগিতা বিষয়ে রাষ্ট্রীয় নীতির পরিবর্তন হবে।
২০১৭ সালে দেশটিতে ভোট অনুষ্ঠিত হয় যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বড় ধরনের সংকট সৃষ্টির প্রেক্ষাপটে। চীন যুক্তরাষ্ট্রকে গোয়েন্দা অপরাধে দক্ষিণ কোরিয়ামুখী মিসাইল সরাতে বলে। সিআই পরিচালক অঘোষিত পরিদর্শন করেন দক্ষিণ কোরিয়ায়। নিরাপত্তা উপদেষ্টা দক্ষিণ কোরিয়ার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ”কে”পারবেন, সে বিষয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সতর্ক করেন।
মুন আহ্বান করে বলেন যে, রক্ষণশীল সরকারের উত্তর কোরিয়া নীতি উত্তর করিয়ার পারমাণবিক বোমা ও অস্ত্র নিরস্ত্রীকরণ করতে পারেনি বরং আন্তর্জাতিক বিশ্বে দক্ষিণ কোরিয়ার কণ্ঠকে সংকুচিত করেছে।
বুধবার সকালে নির্বাচন কমিশনে ভোট গণনা শেষে আনুষ্ঠানিক ফলাফল ঘোষণার পর বিজয়ী প্রেসিডেন্ট শপথ গ্রহণ করবেন। ক্ষমতা হস্তান্তরে ২ মাস সময় লাগবে, কারণ মঙ্গলবারের নির্বাচন ছিল একটি উপনির্বাচন, যার মাধ্যমে পার্কের উত্তরসূরি নির্ধারিত হয়েছে। পার্কের মেয়াদ ছিল ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারী  পর্যন্ত।
মিলিয়ন মিলিয়ন মানুষ দুর্নীতির অভিযোগে পার্কের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেন। সংসদ সদস্যগণ পার্ককে অভিশংসন করেন এবং তাকে গ্রেফতার করা হয় মার্চ মাসে। নতুন প্রেসিডেন্ট এক মেয়াদে ৫ বছর দেশ শাসন করবেন।
সাউলে ভোট দেয়ার পর প্রতিক্রিয়ায় ৬৪ বছর বয়সি মুন বলেন, ‘আমার প্রত্যেক শরীর ও মন সর্বশক্তি দিয়ে নির্বাচনে ঢেলে দিয়েছি।’
মি. মুন  উদারপন্থি প্রেসিডেন্ট প্রয়াত রোহ মু হিউনের চিফ অব স্টাফ ছিলেন। রোহ উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে তুলেন, যিনি ব্যাপক সাহায্য দিয়ে উত্তর কোরিয়ার অর্থনৈতিক প্রকল্প বাস্তবায়নে সাহায্য করেন।
ইঙ প্রাক্তন প্রাদেশিক গভর্নর ,যিনি মুক্তমনের এবং  উত্তর কোরিয়াকে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে প্রতিযোগিতার লক্ষে পারমাণবিক অস্ত্র ও ক্ষেপণাস্ত্রে শক্তিশালী করার  কাজ করেন।
রেজা আফসারী
দ্য ইনডেপেনডেন্ট অবলম্বনে