ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 3 weeks ago

ম্লাডিচের যাবজ্জীবন শাস্তিতে খুশি হতে পারেননি নিহতদের স্বজন



আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

বসনিয়া হার্জেগোভিনার স্রেব্রেনিটসায় ১৯৯৫ সালের গণহত্যায় যে সব মুসলিম স্বজন হারিয়েছেন, তাদের স্বজনরা বলেছেন, রাটকো ম্লাডিচের জন্য কোন শাস্তিই যথেষ্ট না। ম্লাডিচের বিরুদ্ধে গণহত্যার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের শাস্তি হয়েছে।-খবর মেইল অনলাইনের।

বসনিয়ার রাজধানী সারাজেভো তিন বছর অবরোধ ও স্রেব্রেনিটসায় গণহত্যাসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের জন্য ম্লাডিচ দায়ী বলে আদালত প্রমাণ পেয়েছে।

Skeletal remains of victims of the 1995 massacre lie on a hilltop just west of Srebrenica, in 1996

বসনিয়ার পূবাঞ্চলের ছিটমহলে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী ইউরোপের সবচেয়ে নৃশংস গণহত্যার ঘটনা ঘটেছে। যাতে আট হাজার মুসলমান নিহত হয়েছেন।

Outburst: Bosnian Serb military chief Ratko Mladic had to be removed after shouting in the Yugoslav War Crimes Tribunal in The Hague, but the verdict continued and he has been found guilty of genocide and war crimes

ম্লাডিচকে শয়তানের প্রতিচ্ছবি উল্লেখ করে তার যাবজ্জীবন শাস্তিকে ন্যায়বিচারের তাৎপর্যপূর্ণ বিজয় হিসেবে আখ্যা দিয়েছে জাতিসংঘ।

Genocide: Some 8,000 Muslim boys and men were murdered during the 1995 massacre in Srebrenica

স্রেব্রেনিটসার গণহত্যার কথা উল্লেখ করে ভাসবা মাজলোবিক বলেন, যে ব্যক্তি হাজার হাজার মানুষকে হত্যা করেছে, তাকে কখনো প্রাপ্ত শাস্তি দেয়া সম্ভব? তাকে তিনশ বছর কারাদণ্ড দিলেও অনেক কম হয়ে যাবে।

Memories: Vasva Smajlovic, 74, who lost her husband and her son-in-law  along with more than 30 members of her close family,  and Bida Smajlovic 65, who lost her brother and husband along with more than 50 members of her close family

স্রেব্রেনিটসায় ভাসবা মাজলোবিকের স্বামীসহ সকল আত্মীয় স্বজনকে হত্যা করা হয়েছিল। তিনি বলেন, আমি সবসময় আমার মৃত্যুর প্রহর গুনি। আমার বয়স পঞ্চাশ হয়ে গেছে। আমি আর বাঁচতে চাই না। আমি কোন দিন আমার অনুভূতি প্রকাশ করতে পারবো না। সবকিছু খুব দেরি করেই আসে।

 

বাংলা রিপোর্ট/এআর