ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 4 months ago

ম্যানইউতে যাবার কোনো আগ্রহ নেই আগুয়েরোর



ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যাবার কোনো আগ্রহ নেই বলেই স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছেন ম্যানচেস্টার সিটির আর্জেন্টাইন তারকা ফুটবলার সার্জিও আগুয়েরো।

অথচ বেশ কিছুদিন ধরেই গুজব ছিল আগুয়েরো ইউনাইটেডে যাচ্ছেন। এনিয়ে বেশ বিতর্কেরও জন্ম হয়েছে। পেপ গার্দিওলার গুডবুকে ইতোমধ্যেই আর্সেনাল তারকা এ্যালেক্সি সানচেজ ঢুকে পড়ায় এই গুজবটা আরো জোড়ালো হয়। মৌসুমের শেষে গার্দিওলার সাথে এ বিষয়ে আলোচনা করবেন আগুয়েরো।

গণমাধ্যমের রিপোর্টের সূত্রে জানা যায় ইউনাইটেড বেশ কিছুদিন ধরেই আগুয়েরোকে দলে ভেড়ানোর জন্য বড় অর্থের প্রস্তাব করে আসছিল। বোনাস বাদে বার্ষিক প্রায় ১২ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে তারা আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকারকে দলে চায়, এমন দাবিও জানিয়েছে বিভিন্ন গণমাধ্যম।

আগুয়েরোর এক ঘনিষ্ঠ সূত্র এই গুজবকে হাস্যকর বলেছেন। তিনি দাবি জানিয়েছেন এই ধরনের কোন যোগাযোগই ইউনাইটেডের সাথে হয়নি। একইসাথে সূত্রটি স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছে ২৮ বছর বয়সী আগুয়েরো ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে যাবার কোনো সুযোগই নেই। এমনকি ইউনাইটেড বস হোসে মরিনহো স্বয়ং যদি ভবিষ্যতে এই বিষয়ে কোনো আগ্রহ দেখায় তাহলেও তা সম্ভব নয়।

এর আগে চলতি মৌসুমের শুরুতে সিটি ইঙ্গিত দিয়েছিল তারা আগুয়েরোকো বিক্রি করবে না। আগুয়েরো নিজে অবশ্য বলেছিলেন তিনি থাকবেন কি থাকবেন তা ক্লাবই সিদ্ধান্ত নিবে। তবে সম্প্রতি আগুয়েরোর ক্লাব ছাড়ার গুঞ্জন শুরু হয়েছে। সিটির পক্ষ থেকে অবশ্য বলা হচ্ছে চাইনিজ কোন ক্লাবেই হয়ত শেষ পর্যন্ত আগুয়েরো যেতে পারে। বেশ কিছুদিন ধরে মূল একাদশে গ্যাব্রিয়ের জেসাসকে জায়গা ছেড়ে দিতে হয়েছিল আগুয়েরোকে। যদিও এই ব্রাজিলিয়ান পায়ের ইনজুরির কারণে ১০ সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে চলে গেলে আগুয়েরো কপাল খুলে।

জেসাসের অনুপস্থিতিতে আগুয়েরো ১৪ ম্যাচে ১২টি গোল করেছেন। বর্তমানে আগুয়েরোর ফর্ম নিয়ে গার্দিওলা নিজেও প্রকাশ্যে প্রশংসা করেছেন। এপ্রিলের শেষে মিডলসব্রোর বিপক্ষে একইসাথে জেসাস ও আগুয়েরোকে মূল একাদশে জায়গা দেবার জন্য ফর্মেশনে পরিবর্তন আনেন গার্দিওলা। যদিও বিরতির পরে সেই কৌশল আর রাখেননি বা ম্যাচে আর চেষ্টাও করেননি। ঐ ম্যাচের শেষের দিকে আগুয়েরো ইনজুরিতে পড়লে শনিবার ক্রিস্টাল প্যালেসের বিপক্ষে খেলতে পারেননি। আগামি শনিবার লিস্টার সিটির বিপক্ষে ম্যাচে আগুয়েরো সুস্থ হয়ে উঠলে গার্দিওলাও সিদ্ধান্ত নিবেন দুজনকেই একসাথে খেলাবেন নাকি একজনকে বেঞ্চে রেখে মূল একাদশ সাজাবেন।

 

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এমএকে