ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 3 months ago

আরাফাত সানির বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন ৩০ মে



নিজস্ব প্রতিবেদক

ক্রিকেটার আরাফাত সানি ও তার মা নার্গিস আক্তারের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দায়ের করা মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ৩০ মে দিন ধার্য করেছেন আদালত।

সোমবার ঢাকার মহানগর হাকিম জিয়ারুল ইসলাম প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নতুন দিন ধার্য করেন। নির্ধারিত দিনে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদপুর থানা পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল না করায় ঢাকা মহানগর হাকিম জিয়ারুল ইসলাম এ দিন ধার্য করেন।

আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) হরলাল মল্লিক সাংবাদিকদের বিষয়টি জানিয়েছেন।

ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নতুন করে দিন ধার্য করেন।

গত ২২ জানুয়ারি সকালে ঢাকার আমিনবাজার এলাকা থেকে সানিকে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় অভিযোগ আনা হয়।

মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, ২০১৪ সালের ১২ ডিসেম্বরে ক্রিকেটার আরাফাত সানির সঙ্গে ৫ লাখ এক টাকা দেনমোহরে নাসরিন সুলতানার বিয়ে হয়। বিয়ের ৬ মাস পর ক্রিকেটার আরাফাত সানি নাসরিনের কাছে ২০ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। যৌতুকের টাকার জন্য সানি তার স্ত্রীকে মারধর করেন এবং হুমকি-ধমকি দিয়ে ভাড়াবাসায় রেখে যান। এরপর তিনি নাসরিনকে বলেন, যৌতুকের টাকা না দিলে তার মা সংসার করতে দেবে না। এ ছাড়া মোবাইলে ধারণ করা অশ্লীল ছবি ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেন তিনি।

মামলায় আরো অভিযোগ করা হয়েছে, স্ত্রীর দাবি নিয়ে আরাফাত সানির বাড়ি গেলে তাকে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে সানির মা বাড়ি থেকে বের করে দেন এবং হুমকি দিয়ে বলেন, ‘তোর সঙ্গে আমার ছেলে সংসার করবে না তাই সম্পর্ক ছিন্ন করার ব্যবস্থা কর। তখন বাদী তার বাসায় চলে যান। ‘

এ ঘটনায় ১ ফেব্রুয়ারি ঢাকার ৪ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে যৌতুকের জন্য মারধরের অভিযোগে ক্রিকেটার আরাফাত সানি ও মা নার্গিস আক্তারের বিরুদ্ধে মামলা করেন তার স্ত্রী দাবিদার নাসরিন সুলতানা। এর আগে ভিন্ন ধারায় আরো দুটি মামলা করেছেন নার্গিস। সম্প্রতি এই ক্রিকেটার জামিনে আছেন এবং ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে খেলছেন।

 

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এইচআর