ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 4 months ago

দেশে ফিরেছেন মাশরাফিরা



ক্রীড়া প্রতিবেদক:

আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ আর ইংল্যান্ডে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে অংশগ্রহণ উপলক্ষে দীর্ঘ দুই মাসের সফর শেষে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল আজ ১৭ জুন শনিবার দেশে ফিরেছে। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের বহন করা বিমান সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে অবতরণের কথা থাকলেও ফ্লাইট এক ঘণ্টা বিলম্বে অবতরণ করে।

 

তবে টাইগাররা এক সুখ স্মৃতি নিয়েই দেশে ফিরেছেন। বিশ্বক্রিকেটের অন্যতম আসর আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির স্বপ্নের সেমিফাইনাল খেলে নিজেদের যোগ্যতা আর সামর্থ বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরেছেন। এরআগে ত্রিদেশীয় সিরিজে আয়ারল্যান্ডের পাশাপাশি নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে রানার্সআপ হবার কৃতিত্ব দেখান মাশরাফিবাহিনী।

 

বাংলাদেশ এ দুটি আসরকে সামনে রেখে গত ২৭ এপিল ঢাকা ছেড়েছিল। এরপর ইংল্যান্ডের সাসেক্সে ১০ দিনের অনুশীলন ক্যাম্প শেষে অায়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে অংশগ্রহণ করে। ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্ট শেষে ফের ২৫ মে ইংল্যান্ডে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির উদ্দেশ্যে রওনা হয় । সেখানে পাকিস্তান ও ভারতের সঙ্গে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচে অংশগ্রহণ করলেও দুটি ম্যাচেই পরাজিত হয়।
চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির উদ্বোধনী ম্যাচে ১ জুন ‘এ’ গ্রুপে ইংল্যান্ডের কাছে ৮ উইকেটে বাংলাদেশ পরাজিত হয়। এরপর ৫ জুন বৃষ্টিবিঘ্নিত দ্বিতীয় ম্যাচে অবশ্য অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে টিকে থাকার সম্ভাবনা জিইয়ে রাখে। আর ৯ জুন কার্ডিফে তৃতীয় ম্যাচ নিউজিল্যান্ডকে ৫ উইকেটে হারিয়ে অবিস্মরণীয় জয়ের মধ্যদিয়ে গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে স্বপ্নের সেমিফাইনালে জায়গা করে নেন মাশরাফিরা। তবে ১৫ জুন সেমিফাইনালে ভারতের কাছে ৯ উইকেটে হেরে যায় টাইগাররা।

বাংলাদেশ যে টার্গেট নিয়ে ইংল্যান্ডে খেলতে গিয়েছিল সেই স্বপ্নের সেমিফাইনালে খেলেছে ঠিকই। তবে ভারতকে হারিয়ে ফাইনালে যেতে পারেনি। তবুও মাশরাফিবাহিনীর এ অর্জন কম নয়। বিশ্বক্রিকেটে এ ধরনের বড় আসরে প্রথমবারের মত সেমিফাইনাল খেলা কম কৃতিত্বের নয়। যেখানে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার মত বিশ্বসেরা দলগুলো শেষ চারে উঠে আসতে পারেনি সেখানে বাংলাদেশের এ অর্জন নিঃসন্দেহে অনেক বড়।
বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এমএ