ব্রেকিং নিউজঃ

মর্যাদার লড়াইয়ে আবাহনীর জয়  ***  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আওয়ামী লীগ নেত্রীকে কুপিয়ে হত্যা  ***  রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের জন্য ছাদহীন খোলা কারাগার, দশকের পর দশক ধরে প্রাতিষ্ঠানিক বর্ণবাদের শিকার এই বাসিন্দারা-অ্যামনেস্টি  ***  জিম্বাবুয়ের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসাবে শুক্রবার শপথ নিতে যাচ্ছেন দেশটির সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট এমারসন নাঙ্গাগওয়া  ***  চট্রগ্রাম বিমানবন্দরে সাড়ে তিন কেজি স্বর্ণসহ এক যাত্রী আটক  ***  সরকার দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করেছে- মির্জা ফখরুল  ***  মানবতাবিরোধী অপরাধে বসনিয়ার ‘সাক্ষাৎ শয়তান’ রাতকো ম্লাদিচের যাবজ্জীবন  ***  দ. কোরিয়ায় পালাতে গিয়ে সহকর্মীদের গুলিতে নিহত উ. কোরীয় সৈনিক  ***  জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট হিসেবে ন্যানগাওয়ের শপথ শুক্রবার, আজ রাতে পালাতে পারেন মুগাবে  ***  কুড়িগ্রামে মৌমাছির কামড়ে ৩৭ জন শিক্ষার্থীসহ আহত অর্ধশতাধিক
Published: 5 months ago

আফগানিস্তানে আরো সেনা পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র



মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আফগানিস্তানে আরো সেনা পাঠানোর অনুমতি দিয়েছেন। তারই পরিপ্রেক্ষিতে দেশটিতে আরো অন্তত ৪ হাজার সেনা পাঠাতে যাচ্ছে ওয়াশিংটন।

 

বৃহস্পতিবার মার্কিন গণমাধ্যম ইউএসএ টুডে ও নিউইয়র্ক টাইমস এ খবর দিয়েছে।

 

ট্রাম্প প্রশাসনের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়েছে, এসব সেনার মধ্যে মার্কিন বিশেষ বাহিনীর কয়েক শ সদস্যও থাকবে।

 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই কর্মকর্তা বৃহস্পতিবার বলেছেন, আগামী সপ্তাহের গোড়ার দিকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী জিম ম্যাটিস এ সংক্রান্ত আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবেন।

 

সম্প্রতি ম্যাটিস মার্কিন কংগ্রেসের এক শুনানিতে বলেন, আফগান যুদ্ধে আপাতত জয়ী হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। তখনই পর্যবেক্ষকরা বলেছিলেন, যুদ্ধবিধ্বস্ত দরিদ্র দেশটিতে আরো বেশি সৈন্য পাঠানোর অজুহাত হিসেবে এ দাবি করেছেন ম্যাটিস।

 

আফগানিস্তানে বর্তমানে ৮ হাজার ৪০০ মার্কিন সেনার পাশাপাশি ন্যাটো জোটের অন্যান্য দেশের আরো ৫ হাজার সেনা মোতায়েন রয়েছে।

 

পেন্টাগন আফগানিস্তানে ৪ হাজার অতিরিক্ত সেনা পাঠানোর পাশাপাশি ন্যাটোভুক্ত দেশগুলোকেও দেশটিতে আরো ৫ হাজার সেনা পাঠানোর আহ্বান জানিয়েছে।

 

২০১৪ সালের শেষ নাগাদ আফগানিস্তানে তালেবানবিরোধী যুদ্ধ আনুষ্ঠানিকভাবে সমাপ্তি ঘোষণা করে আমেরিকা। বর্তমানে দেশটির সেনারা আফগান সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষণ ও সামরিক উপদেশ দেয়ার কাজে নিয়োজিত রয়েছে বলে দাবি করে ওয়াশিংটন।

 

কিন্তু এবার দেশটিতে অতিরিক্ত সৈন্য পাঠানোর সিদ্ধান্তের অর্থ হচ্ছে, আফগানিস্তানে আবার তালেবানবিরোধী যুদ্ধে জড়াতে যাচ্ছে আমেরিকা।

 

প্রসঙ্গত, ম্যাটিস আগেই জানান, আফগান পরিস্থিতি পর্যালোচনা করছে প্রশাসন। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে কয়েক সপ্তাহ লেগে যাবে। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে তালেবানদের বেশ কয়েকটি বড় ধরনের হামলায় তড়িঘড়ি করে অতিরিক্ত সেনা পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পেন্টাগন।