ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 3 months ago

সাতক্ষীরায় ব্যাংক ম্যানেজারকে ডাকাত বানাতে গিয়ে…



সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:

 

সাতক্ষীরা শহরের এক ব্যাংক ম্যানেজারকে ডাকাত বানাতে গিয়ে ঋণ খেলাপি এনজিও কর্মকর্তা নিজেই পুলিশের হাতে ধরা খেলেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শহরের কামাননগর এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

 

আটক এনজিও কর্মকর্তার নাম মাহবুবুর রহমান। তিনি জামায়াত পরিচালিত এনজিও দিগন্ত ফাউন্ডেশনের পরিচালক।

 

সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি মারুফ আহমেদ জানান, তার কাছে খবর আসে যে শহরের কামাননগরের মাহবুবুর রহমানের বাড়িতে ডাকাতি করতে গেছে কয়েকজন লোক। এ খবর পেয়ে তিনি এসআই মোবাশ্বের আলিকে দ্রুত ঘটনাস্থলে পাঠাান।

 

এসআই মোবাশ্বের জানান, মাহবুবুর রহমান যাকে ডাকাত ডাকাত বলে গ্রাম উজাড় করেছেন তিনি সাতক্ষীরা ইসলামী ব্যাংকের ম্যানেজার আবদুস সালাম। তার সঙ্গে এ সময় আরও  চার পাঁচজন লোক ছিলেন। মাহবুব পুলিশকে জানান, ব্যাংক ম্যানেজার আব্দুস সালাম তার বাড়িতে ডাকাতি করতে এসেছিলেন।

 

অপরদিকে ব্যাংক ম্যানেজার আব্দুস সালাম জানান, মাহবুব ব্যাংকের কাছে প্রায় ৫০ লাখ  টাকা ঋণী। আমরা তার কাছে এ টাকার জন্য তাগাদা দিতে এসেছিলাম। রাস্তায় দেখা হওয়ায় তিনি আমাদের সাথে ইফতার করবেন বলে বাড়িতে ডেকে নিয়ে যান। এরপর ঘরে বসিয়ে রেখে ‘ডাকাত এসেছে’ এই নাটক করে তিনি তাদের মারধর করেন।

 

পুলিশ এ সময় মাহবুব ও ব্যাংক কর্মকর্তাসহ তার সঙ্গীদের থানায় নিয়ে আসেন। পরে মাহবুবের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়। অপরদিকে ব্যাংক ম্যানেজার আব্দুস সালাম ও তার সহযোগীদের থানা থেকে ছেড়ে দেয়া হয়।

 

উল্লেখ্য, আটক এনজিও কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান ২০১৩ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি সাতক্ষীরায়  জামায়াতের তাণ্ডবে নেতৃত্বদানকারীদের একজন। তার বিরুদ্ধে রয়েছে সিটি কলেজ প্রভাষক সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মামুন হত্যা মামলা। এই মামলা থেকে রক্ষা পেতে তিনি যোগ দেন আওয়ামী লীগে। বাগিয়ে নেন আগরদাঁড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের অর্থ সম্পাদকের পদটি। আগে থেকেই জামায়াত পরিচালিত এনজিও দিগন্ত ফাউন্ডেশনের পরিচালক এই মাহবুব এখন  কোটিপতি।

 

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এমএকে