ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 2 months ago

মান্দার বিলবয়রা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শ্রেণিকক্ষ সংকট: ক্লাব ঘরের পরিত্যক্ত কক্ষে পাঠদান



নওগাঁ (মান্দা) প্রতিনিধি

নওগাঁর মান্দা উপজেলার ৮৮নং বিলবয়রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শ্রেণিকক্ষের সংকটের কারণে পাশের ক্লাব ঘরের পরিত্যক্ত ঝুঁকিপূর্ণ কক্ষে চলছে পাঠদান। কক্ষ যেকোনো সময় ভেঙে পড়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা প্রকাশ করছেন বিদ্যালয়ের শিক্ষকগণ, ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবকসহ সচেতন এলাকাবাসী।

সংশি¬ষ্ট কর্তৃপক্ষকে একাধিক বার অবগত করেও কোনো কাজ হয়নি বলে জানান ভুক্তভোগী শিক্ষক ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি।

বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ভারতী রানী জানান, বিদ্যালয়টি ১৯০০ সালে স্থানীয় শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিদের হাতে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে । প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে মাটির তৈরি কয়টি কক্ষে পাঠদান কার্যক্রম শুরু হয় । পরবর্তী সময়ে বিদ্যালয়ে ৪ কক্ষবিশিষ্ট একতলা ভবন তৈরি করা হয়। এর মধ্যে ১টিতে চলে অফিসের কার্যক্রম। কয়েক দশক পূর্বের ঐ ভবনের জরাজীর্ণ অবস্থা। আবার বর্তমানে শিক্ষার্থীদের সংখ্যার তুলনায় যা অপ্রতুল।

কক্ষের সংকটের কারণে পাশের ক্লাব ঘরের পরিত্যক্ত কক্ষে পাঠদান কার্যক্রম চালাতে বাধ্য হচ্ছেন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিদ্যালয়টি বন্যাকবলিত এলাকায় অবস্থিত। এটি ফকিন্নী (রাণী) নদীর তীরবর্তী এলাকায় অবস্থিত হওয়ায় প্রতি বর্ষা মৌসুমে বিদ্যালয়টি পানিতে বদ্ধ হয়ে যায়। তখন পানির ভয়ে অনেক শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ে আসেন না।

বিদ্যালয়ে দীর্ঘদিন যাবত প্রধান শিক্ষককের পদ শূন্য রয়েছে। বর্তমানে বিদ্যালয়ে মোট শিক্ষার্থী ১৬৬ জন। প্রতিদিন সব শ্রেণি মিলে প্রায় ১৫০ জন শিক্ষার্থী পাঠগ্রহণ করছে। আধুনিক সময়ে আধুনিকতার ছোঁয়া থেকে বঞ্চিত অজপাড়া গ্রামের এই বিদ্যালয়টি।

বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ জাহাঙ্গীর আলম মাঝি জানান, আমার ইউনিয়নের মধ্যে এই বিলবয়রা বিদ্যালয়টির অবস্থা খুবই বেহাল। অজপাড়া গ্রামের এই বিদ্যালয়ে এখনো পর্যন্ত কোনো আধুনিকতার ছোঁয়া লাগেনি এটা আমাদের এলাকার জন্য খুবই দুঃখজনক। তবে বিদ্যালয়ের এহেন অবস্থা সম্পর্কে একাধিকবার আমি উপর মহলকে লিখিতভাবে জানিয়েও আজ পর্যন্ত কোনো ফলাফল আসেনি। তবে সরকারিভাবে অনুদান পাওয়া না গেলে আধুনিক মানসম্পন্ন বিদ্যালয় করা সম্ভব নয়।

মান্দা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ মোখলেছুর রহমান জানান, বিদ্যালয়টির সমস্যা চিহ্নিত করে সংশি¬ষ্ট কর্তৃপক্ষকে যত দ্রুত সম্ভব ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।

 

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এমএকে