ব্রেকিং নিউজঃ

বাংলাদেশের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট দল ঘোষণা  ***  রাস্তার ধারে ভয়ঙ্কর বিস্ফোরণ! প্রাণ হারালেন ৪ সেনা, আহত ৬  ***  ঢাবি ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত  ***  রোহিঙ্গা নির্যাতন, গণহত্যায় আন্তর্জাতিক গণআদালতে দোষী সাব্যস্ত হলেন সু চি ও সেনাপ্রধান  ***  দেশে ফোর-জি নেটওয়ার্ক সার্ভিস চালু হবে আগামী ডিসেম্বরে : তারানা হালিম  ***  বার্মায় রেডক্রসের ত্রাণবাহী নৌকায় বৌদ্ধদের হামলা  ***  ট্রাম্পকে কড়া ভাষায় জবাব দিলেন ইরানের প্রেসিডেন্ট  ***  শ্যামপুরে আগুনে পুড়ে দগ্ধ একই পরিবারের ৫ জন, যেভাবে আগুন লাগে  ***  ভারতের কাছে ৫০ রানে হেরে গেল অস্ট্রেলিয়া  ***  প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশ ২৮৫ রানে এগিয়ে
Published: 5 months ago

শারমিনের উচ্চশিক্ষা কী বন্ধ হয়ে যাবে?



মান্দা (নওগাঁ) প্রতিনিধি

ইচ্ছে,আন্তরিকতা এবং নিরলস পরিশ্রম থাকলে যেকোনো কঠিন কাজেই যে সাফল্য লাভ করা যায়, আরেকবার তারই প্রমাণ দিল সাহাপুকুরিয়া গ্রামের স্বামী পরিত্যক্তা মালা খাতুনের মেয়ে শারমিন পারভীন।

নওগাঁ জেলার মান্দা উপজেলার সাহাপুকুরিয়া গ্রামের শারমিন  দারিদ্র্যকে জয় করে সাহাপুর ডিএ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০১৭ সালের এসএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন জিপিএ-৫ পাওয়ায় খুশি তার বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা ও গ্রামবাসী। সে জেএসসি পরীক্ষায় একই বিদ্যালয় থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছিল। তাছাড়া সাহাপুর ঢোলপুকুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে শিক্ষা সমাপনী ২০১১ এর পরীক্ষাতেও সে প্রতিটি বিষয়ে এ প্লাস পেয়েছে। ভবিষ্যতে সে উচ্চশিক্ষা অর্জন করে সরকারি চাকরি করতে চায় বলে জানায়। কিন্তু এ সময় কাছে থাকার কথা ছিল যে পিতাকে, সে পাষন্ড পিতা শাহজাহান আলী শারমিনের বয়স যখন তিন মাস তখনই তার মা ও তাকে ফেলে চলে যায়। ফলে শারমিনের আশ্রয় হয় নানার বাড়ি।

গত বছর ২৭ জানুয়ারি নানা মারা যান। ভাগ্যের নির্মম পরিহাস পরের দিন নানী পদ্ম বিবিও মারা যান। বর্তমানে মা ও মেয়েকে দেখার মতো আর কেউ নেই। তাহলে কি এসএসসি’তে এ প্লাস পাওয়া মেধাবী ছাত্রী শারমিনের উচ্চশিক্ষা বন্ধ হয়ে যাবে?

তাই পরীক্ষার ফল প্রকাশ হওয়ার পর থেকে সবার মুখে হাসি থাকলেও শারমিনের মা মালা খাতুন দুশ্চিন্তাগ্রস্ত। কারণ তার শঙ্কা অর্থাভাবে মেয়ের উচ্চশিক্ষার দরজা হয়তো এবার চিরতরে বন্ধ হয়ে যাবে। কে নেবে এ অসহায় মেয়ের উচ্চশিক্ষার দায়-দায়িত্ব?

অন্যের বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করে পরিবারের দু’মুঠো ভাত জোগাতে যার দেখার কেউ নেই সে কি মেধাবী মেয়েকে উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করতে পারবে? এমনটিই বললেন মালা খাতুন।

তিনি জানান, দিনের পর দিন অক্লান্ত পরিশ্রম করে অনেক কষ্টে মেয়েকে লেখাপড়া করিয়েছি যার ফলে সে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিক গোলাম  সরোয়ার স্বপন শারমিনের ষষ্ঠ শ্রেণী থেকে ১০ শ্রেণী পর্যন্ত সহযোগিতা করেছেন। ভর্তির ব্যাপারে কিছু সহযোগিতার আশ্বাসও দিয়েছেন।

এলাকাবাসী সহযোগিতার হাত বাড়ালে শারমিনের পড়াশোনা চালিয়ে যেতে আর কোনো বাধা থাকবে না বলে মনে করেন তার মা।

যোগাযোগের ঠিকানা :

মোছা: শারমিন পারভীন, সাহাপুর ডিএ উচ্চ বিদ্যালয়, এসএসসি রোল: ১২৮৮২৪, রেজি: ১৪১২৬৯২৪৩৪, মাতা: মোছা: মালা খাতুন, গ্রাম: সাহাপুকুরিয়া, ডাকঘর: প্রসাদপুর, উপজেলা: মান্দা, জেলা: নওগাঁ। মোবাইল নম্বর: ০১৭৩৬৫৩০৬৬৮ (অনুরোধে)।

 

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এমএকে