ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 1 week ago

নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনে অংশ নিতে প্রস্তুত বিএনপি: মির্জা ফখরুল



বাংলা রিপোর্ট:

নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনে অংশ নিতে বিএনপি প্রস্তুত রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির  মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের অধীনে না হয়ে নির্বাচন হলে শুধু আগাম নয় আগামীকালও নির্বাচনে যেতে প্রস্তুত বিএনপি।

 

বুধবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যৌথ সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ও সিইসির দেওয়া বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

 

মির্জা ফখরুল বলেন, আগাম নির্বাচনের জন্য বিএনপি প্রস্তুত আছে। নির্বাচন যদি আগামীকালও হয় সেটার জন্যও বিএনপির প্রস্তুত। তবে, নির্বাচনের আগে সংসদ ভেঙ্গে দিতে হবে। প্রধানমন্ত্রীকে তার পদ ছাড়তে হবে।

 

‘স্বৈরাচার পতন দিবসে বিএনপির কোনো কর্মসূচি নেই কেন’—সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে বিএনপি নেতা বলেন, ‘স্বৈরাচারের পতন হয়েছে, নাকি (স্বৈরাচার) নতুন করে জেগে উঠেছে?’

 

হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টির সঙ্গে বিএনপির যোগাযোগ করার কথা শোনা গেছে; এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ যদি জামায়াতে ইসলামী, ইসলামী আন্দোলনের সঙ্গে আন্দোলন করতে পারে, আসন বণ্টন করতে পারে অতীতে, তাহলে নাথিং ইস ইমপসিবল ইন পার্লামেন্টারি ডেমোক্রেসি।’

 

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপনির্বাচন প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘মেয়র আনিসুল হকের সাথে আমার ব্যক্তিগত সম্পর্ক ছিল। তিনি নিঃসন্দেহে উন্নয়নের প্রভাব দেখিয়েছেন। তবে তাঁর মৃত্যুর পর এখনো পর্যন্ত আমাদের কোনো দলীয় সিদ্ধান্ত হয়নি, আমরা দলের পক্ষ থেকে প্রার্থী দেব কি না। তবে আমরা এটি প্রমাণ করতে সফল হয়েছি এ সরকারের অধীনে কোনো সুষ্ঠু নির্বাচন হয় না।’

 

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা যে লক্ষ্য নিয়ে যুদ্ধ করেছিলাম, স্বাধীনতার এত বছর পরেও সেই স্বপ্ন সেই লক্ষ্যের প্রতিফলন হচ্ছে না। ক্ষমতাসীন দল সংবিধানে দলীয় অনুচ্ছেদ বসিয়েছে।’

 

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ‘যুক্তফ্রন্ট’ গঠনের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘জোট তৈরি করা হচ্ছে স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর জন্য। যারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে এ রকম ব্যক্তি-সংগঠনকেও এই জোটে আহ্বান জানাই এবং স্বাগত জানাচ্ছি। জনগণের শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য চারদলীয় জোট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।’

 

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/একে