ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 3 months ago

মওদুদের নাইকো দুর্নীতি মামলা ১ সপ্তাহের জন্য স্থগিত



বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের নাইকো দুর্নীতি মামলার কার্যক্রম আরো এক সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেছে আদালত।

রোববার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে চার বিচারপতির আপিল বিভাগ বেঞ্চ এ আদেশ দেয়। আদালতে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ নিজেই শুনানি করেন। দুদকের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

খুরশীদ আলম খান সাংবাদিকদের বলেন, আগামী রোববার বিষয়টি শুনানির জন্য আবারো কার্যতালিকায় আসবে।

গত ১৩ এপ্রিল মওদুদ আহমদের আবেদনের প্রেক্ষিতে আপিল বিভাগের চেম্বার কোর্ট বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন ওই মামলার বিচার কার্যক্রম ৭ মে পর্যন্ত স্থগিত করে শুনানির জন্য আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে প্রেরণ করে।

এর আগে ১২ এপ্রিল মওদুদ আহমদের নাইকো দুর্নীতি মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে জারি করা রুল খারিজ করে রায় দেয় হাইকোর্ট। গত বছরের ১ ডিসেম্বর মওদুদ আহমদের করা এক ফৌজদারি রিভিশন আবেদনের প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট নাইকো দুর্নীতি মামলার কার্যক্রম ৮ সপ্তাহের জন্য স্থগিত করে রুল জারি করে আদালত। রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে আদালত তা খারিজ করে দেয়।

মওদুদ আহমদ হাইকোর্টে রিভিশন আবেদনে উল্লেখ করেন, নাইকোর সঙ্গে চুক্তির বিষয়টি নাইকো-বাপেক্স ও পেট্রোবাংলার মধ্যে ওয়াশিংটনের সালিশি আদালতে বিচারাধীন। সালিশি আদালত গত বছরে ১৯ জুলাই আদেশ দেয়। ওই আদেশে বলা হয়, আদালতে বিষয়টি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশের আদালতে এই মামলার কার্যক্রম স্থগিত থাকবে। এরপর ওয়াশিংটনের সালিশি আদালতের আদেশের কথা উল্লেখ করে এ মামলা চলমান থাকায় ঢাকার বিশেষ জজ আদালতে বিচারাধীন মামলাটি স্থগিত চায় মওদুদ আহমদ।

নিম্ন আদালত গত ১৬ আগস্ট মওদুদের সেই আবেদন খারিজ করে দেয়। খারিজ আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে ফৌজদারি রিভিশন আবেদন করেন মওদুদ। আবেদনে ওয়াশিংটনের সালিশি আদালতের আদেশের কপি হাইকোর্টে তলবের আবেদনও করা হয়।

সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট মওদুদের মামলার কার্যক্রম ৮ সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেন। একই সঙ্গে নিম্ন আদালতে তার আবেদন খারিজ করে দেয়ার আদেশটি কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়।

 

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এমএকে