ব্রেকিং নিউজঃ

বাংলাদেশের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট দল ঘোষণা  ***  রাস্তার ধারে ভয়ঙ্কর বিস্ফোরণ! প্রাণ হারালেন ৪ সেনা, আহত ৬  ***  ঢাবি ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত  ***  রোহিঙ্গা নির্যাতন, গণহত্যায় আন্তর্জাতিক গণআদালতে দোষী সাব্যস্ত হলেন সু চি ও সেনাপ্রধান  ***  দেশে ফোর-জি নেটওয়ার্ক সার্ভিস চালু হবে আগামী ডিসেম্বরে : তারানা হালিম  ***  বার্মায় রেডক্রসের ত্রাণবাহী নৌকায় বৌদ্ধদের হামলা  ***  ট্রাম্পকে কড়া ভাষায় জবাব দিলেন ইরানের প্রেসিডেন্ট  ***  শ্যামপুরে আগুনে পুড়ে দগ্ধ একই পরিবারের ৫ জন, যেভাবে আগুন লাগে  ***  ভারতের কাছে ৫০ রানে হেরে গেল অস্ট্রেলিয়া  ***  প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশ ২৮৫ রানে এগিয়ে
Published: 4 months ago

রাষ্ট্রপতির কাছে তিন দেশের রাষ্ট্রদূতের পরিচয়পত্র পেশ



রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের কাছে মঙ্গলবার বিকেলে বঙ্গভবনে বাংলাদেশে নিযুক্ত কিউবা ও ফিনল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত এবং সিঙ্গাপুরের হাইকমিশনার পরিচয়পত্র পেশ করেন।

এই তিনজন অনিবাসি দূতরা হলেন- কিউবার অসকার ইসরায়েল মার্টিনেজ কর্দোভেজ, ফিনল্যান্ডের নিনা এরমেলি ভাসকুনলাথি এবং সিঙ্গাপুরের ডেরেক লোহ ইডি-সে।

বঙ্গভবনে নয়া রাষ্ট্রদূতদের স্বাগত জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, বাংলাদেশের পররাষ্ট্র নীতি হচ্ছে ‘সকলের সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারও সঙ্গে বৈরিতা নয়’ এবং বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে গুরুত্ব দেয়।

রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব জয়নাল আবেদিন জানান, এই রাষ্ট্রদূতদের দায়িত্ব পালনকালে সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও সম্প্রসারিত হবে বলে রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন।

হামিদ বলেন, বাংলাদেশ বিশ্বমানের ওষুধ, বস্ত্র, সিরামিক সামগ্রি, হস্তশিল্প, পাটজাত সামগ্রি ও চামড়া উৎপাদন করে।

দেশের সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক অগ্রগতির বিষয়টি উল্লেখ করে রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন, রাষ্ট্রদূতগণ বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরও দৃঢ় করতে এবং বাংলাদেশ ও ওই তিনটি দেশের মধ্যে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্ভাবনা সম্প্রসারিত করতে বাস্তবমুখী পদক্ষেপ নিবেন।

রাষ্ট্রদূতগন আবদুল হামিদকে জানান, আগামি দিনগুলোতে বাংলাদেশের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে তারা প্রয়োজনীয় সবকিছু করবেন। আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা করে রাষ্ট্রদূতগণ এদেশে তাদের দায়িত্ব পালনকালে সবধরনের সহযোগিতা চান।

রাষ্ট্রপতির সংশ্লিষ্ট সচিবগণ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে দুইজন রাষ্ট্রদূত ও একজন হাইকমিশনার বঙ্গভবনে এসে পৌঁছালে রাষ্ট্রপতির গার্ড রেজিমেন্টের (পিজিআর) একটি চৌকসদল তাদেরকে আলাদাভাবে ‘গার্ড-অব-অনার’ প্রদান করে।

 

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এমএকে