ব্রেকিং নিউজঃ

মানবতাবিরোধী অপরাধে বসনিয়ার ‘সাক্ষাৎ শয়তান’ রাতকো ম্লাদিচের যাবজ্জীবন  ***  দ. কোরিয়ায় পালাতে গিয়ে সহকর্মীদের গুলিতে নিহত উ. কোরীয় সৈনিক  ***  জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট হিসেবে ন্যানগাওয়ের শপথ শুক্রবার, আজ রাতে পালাতে পারেন মুগাবে  ***  কুড়িগ্রামে মৌমাছির কামড়ে ৩৭ জন শিক্ষার্থীসহ আহত অর্ধশতাধিক  ***  কুষ্টিয়ায় লিপু হত্যা : ২ আসামির মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত  ***  লেবাননের প্রধানমন্ত্রী হারিরির পদত্যাগ স্থগিত  ***  আগামী বছর ১ ফেব্রুয়ারি থেকে এসএসসি পরীক্ষা শুরু হবে  ***  সরকার নিজের অপকর্মের দায় অন্যের ওপর চাপাচ্ছে: রিজভী  ***  সংসদ নির্বাচনে প্রয়োজনে সেনাবাহিনী নামানো হবে: ইসি শাহাদাত  ***  বিপিএল-এ দু’দিনের বিরতি; ২৪ নভেম্বর থেকে তৃতীয় পর্ব শুরু হবে চট্টগ্রামে
Published: 6 months ago

শিশু অধিকার সূচকে বাংলাদেশে ৮৭তম



বাংলা রিপোর্ট ডেস্ক

শিশু অধিকার সূচকে বিশ্বের ১৬৫টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ৮৭তম। সূচকে বাংলাদেশের পরিস্থিতি প্রতিবেশী দেশ ভারত, শ্রীলঙ্কা, মিয়ানমার ও পাকিস্তানের চেয়েও ভালো।

সম্প্রতি নেদারল্যান্ডসভিত্তিক প্রতিষ্ঠান কিডস রাইটস ফাউন্ডেশন বিশ্ব শিশু অধিকার সূচকের এ তথ্য নিজস্ব ওয়েবসাইটে প্রকাশ করে।

কিডস রাইটস ফাউন্ডেশনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পর্তগালের শিশুরা অধিকার ভোগ করার দিক থেকে শীর্ষে রয়েছে। তবে সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি বিরাজ করছে আফ্রিকার দেশ আফ্রিকান রিপাবলিক, ইউরোপের দেশ লিসটেন্সটাইন ও পোল্যান্ডের শিশুদের।

‘কিডসরাইটস ইনডেক্স’ নামে এ প্রতিবেদনে শিশুদের জীবনের অধিকার, স্বাস্থ্যের অধিকার, শিক্ষার অধিকার, নিরাপত্তা এবং অধিকার ভোগ করার পরিবেশ; এই পাঁচটি বিষয়ে ২৩টি সূচকের ভিত্তিতে দেশগুলোর অবস্থান নির্ণয় করা হয়েছে।

এ সূচক নির্ধারণের জন্য জাতিসংঘের শিশু অধিকার সনদ অনুসমর্থন করা ১৬৫ দেশকে বাছাই করা হয়। শিশু অধিকার রক্ষার সূচকে সার্কভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের উপরে রয়েছে শুধু ভুটান।

তবে নির্দিষ্ট সূচকের ভিত্তিতে তালিকার প্রথম ১০টি দেশের মধ্যে ইউরোপের দেশ আটটি। সেরা দশে রয়েছে কেবল এশিয়ার দেশ থাইল্যান্ড; অবস্থান ৮ এবং আফ্রিকার দেশ তিউনিসিয়া; অবস্থান ৯।

তালিকায় বাংলাদেশ ছাড়া সার্কভুক্ত দেশগুলোর অবস্থান যথাক্রমে ভুটান ৫, ভারত ৯৭, পাকিস্তান ১৩৬, মালদ্বীপ ১১১, শ্রীলঙ্কা ১২২, নেপাল ১২৫ ও আফগানিস্তান ১৬৪।

এদিকে, এ তালিকার ১৫৬তম স্থানে রয়েছে যুক্তরাজ্য। প্রতিবেদনে যুক্তরাজ্যের এই অবস্থানকে বিস্ময়কর হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

কিডস রাইটস ফাউন্ডেশন একটি সামাজিক ও একাডেমিক যৌথ উদ্যোগ। নেদারল্যান্ডসের এরাসমাস ইউনিভার্সিটি রোটেরডাম এবং ইন্টারন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব সোশ্যাল স্টাডিজ যৌথভাবে ২০১০ সালে এটা শুরু করে। তবে সংগঠনটি শিশু অধিকার সূচকের ভিত্তিতে দেশগুলোর বৈশ্বিক অবস্থান নির্ণয় করে প্রথমবার ২০১৩ সালে।

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এইচআর