ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 6 months ago

গরমে ‘সেদ্ধ’ নগরজীবনে স্বস্তির বৃষ্টি



বাংলা রিপোর্ট ডেস্ক

কয়েক দিনের ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ নগরজীবনে স্বস্তির পরশ নিয়ে এসেছে এক পশলা বৃষ্টি। গরমে অস্থির নগরবাসীর প্রতিদিনের দিন সূর্যের কিরণের তাপে শুরু হলেও আজ সোমবারের সকাল থেকে ঢাকার আকাশে মেঘের আনাগোনা শুরু হয়। পুরো ঢাকার আকাশ ছেয়ে যায় ঘন মেঘের ভেলায়। অবশেষে সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে ফোঁটায় ফোঁটায় শুরু হয় প্রত্যাশার বর্ষণ। সেই সঙ্গে কমে যায় তাপমাত্রাও। প্রায় আধা ঘণ্টার মতো চলা এই ঝুম বৃষ্টিতে স্তস্তির নিঃশ্বাস ফেলে নগরবাসী।

আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে, আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা আছে। আজ সকালে রাজধানীর ইস্কাটন গার্ডেন, রমনা, মগবাজার, ফার্মগেট, শ্যামলি, আসাদগেট, যাত্রাবাড়ী এলাকা থেকে বৃষ্টির খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া দেশের বেশ কয়েকটি জেলা থেকে বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টির খবর পাওয়া গেছে।

চলতি সপ্তাহজুড়ে গরমের দাপট ছিল অত্যন্ত বেশি। গতকাল ঢাকায় সর্বোচ্চ ৩৪.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। আগের কয়েকদিনও তাপমাত্রা প্রায় কাছাকাছি ছিল।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, সোমবার রাজধানীতে তাপমাত্রা এক থেকে তিন ডিগ্রি সেলসিয়াস হ্রাস পেতে পারে। সকাল ছয়টায় ঢাকায় ২৫.৮ ডিগ্রি তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। গতকাল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সকাল ছয়টায় ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আদ্রতা ছিল ৭৯ শতাংশ।

গতকাল আবহাওয়া চিত্রের সংক্ষিপ্তসারে বলা হয়েছিল , লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে, যা উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

এদিকে সকালের বৃষ্টিতে নগরজীবনে যেমন স্বস্তি এনেছে, এর পাশাপাশি বিপাকেও পড়তে হয়েছে অনেককে। অনেক রাস্তায় পানি জমে যাওয়ায় হেঁটে গন্তব্যে যেতে পারছেন না স্কুল ও অফিসগামী লোকজন। এজন্য টাকা দিয়ে পানি পার হতে হচ্ছে অনেককে। এছাড়া পানি জমে যাওয়ায় অনেক সড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। অনেক জায়গায় রাস্তার সংস্কার কাজ হওয়ায় কাদাপানিতে কাপড় নষ্ট হচ্ছে নগরবাসীর। তারপরেও বৃষ্টি তাদের মনে স্বস্তি এনে দিয়েছে।

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এইচআর