ব্রেকিং নিউজঃ

বাংলাদেশের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট দল ঘোষণা  ***  রাস্তার ধারে ভয়ঙ্কর বিস্ফোরণ! প্রাণ হারালেন ৪ সেনা, আহত ৬  ***  ঢাবি ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত  ***  রোহিঙ্গা নির্যাতন, গণহত্যায় আন্তর্জাতিক গণআদালতে দোষী সাব্যস্ত হলেন সু চি ও সেনাপ্রধান  ***  দেশে ফোর-জি নেটওয়ার্ক সার্ভিস চালু হবে আগামী ডিসেম্বরে : তারানা হালিম  ***  বার্মায় রেডক্রসের ত্রাণবাহী নৌকায় বৌদ্ধদের হামলা  ***  ট্রাম্পকে কড়া ভাষায় জবাব দিলেন ইরানের প্রেসিডেন্ট  ***  শ্যামপুরে আগুনে পুড়ে দগ্ধ একই পরিবারের ৫ জন, যেভাবে আগুন লাগে  ***  ভারতের কাছে ৫০ রানে হেরে গেল অস্ট্রেলিয়া  ***  প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশ ২৮৫ রানে এগিয়ে
Published: 5 months ago

নিরাপদ সেবা প্রদানে উন্নয়ন ও পরিবেশের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখা জরুরি : স্পিকার



জাতীয় সংসদের স্পিকার ও সিপিএ চেয়ারপার্সন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, জনগণকে নিরাপদ সেবা প্রদানের লক্ষ্যে উন্নয়ন ও পরিবেশের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখা অতীব জরুরি।

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস (বিইউপি) আয়োজিত ‘পানির অধিকার : পরিবেশ আইনের জন্য একটি নয়া প্রেক্ষিত’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

স্পিকার বলেন, রাষ্ট্রের তিনটি স্তম্ভ- আইন সভা, নির্বাহী বিভাগ ও বিচার বিভাগ সংবিধান অনুসারে সমন্বিত কার্যক্রম পরিচালনা করে জনগণের কল্যাণ সাধনের জন্য রাষ্ট্রকে সুসংহত রাখে। সে কারণে জনগণকে নিরাপদ সেবা প্রদানের লক্ষ্যে উন্নয়ন ও পরিবেশের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখা অতীব জরুরি। তাহলেই কেবল দেশের টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত হবে।

তিনি বলেন, জনগণের জন্যই রাষ্ট্র্র। রাষ্ট্রের সংবিধান, আইন, রীতিনীতি সকল কিছুই জনগণের মঙ্গলের জন্য। বাংলাদেশের সংবিধানে জনগণের মৌলিক অধিকার-অন্ন, বস্ত্র, চিকিৎসা, শিক্ষা ও বাসস্থান এ সকল অধিকার সুরক্ষার বিষয়ে সুস্পষ্ট উল্লেখ রয়েছে। এ সকল অধিকার জনগণের বেঁচে থাকার জন্য। বেঁচে থাকার অধিকারের মাঝে নিহিত আছে পানির অধিকার। রাষ্ট্র অবশ্যই জনগণের জন্য নিরাপদ পানি নিশ্চিত করতে বিদ্যমান আইন অনুসরণ করবে এবং প্রয়োজনে নতুন নীতি ও আইন প্রণয়ন করে জনগণের পানির অধিকার সুরক্ষিত করবে।

তিনি বলেন, পানি মানুষের বেঁচে থাকার জন্য অপরিহার্য উপাদান। সুপেয় পানি জনগণের মাঝে সরবরাহ করা সরকারের অন্যতম প্রধান দায়িত্ব। একই সাথে পানি দূষণরোধ করে সুপেয় পানি নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে সরকার জনগণের কাছে জবাবদিহি করতে বাধ্য। এক্ষেত্রে বিদ্যমান আইন সঠিকভাবে অনুসরণ হচ্ছে কিনা এবং উন্নয়নের ক্ষেত্রে পরিবেশ ভারসাম্য হারাচ্ছে কিনা তা পর্যবেক্ষণ করতে হবে।

শিরীন শারমিন বলেন, জনগণের পানির অধিকার সুরক্ষা করতে সরকারের বাজেট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কেননা বাজেটে প্রয়োজনীয় বরাদ্দ নিশ্চিত করলে বৃহৎ আকারে পানি সেবা তৃণমূল পর্যায়ে জনগণের কাছে পৌঁছে দেয়া সম্ভব।

এ সময় তিনি বলেন, বিভিন্ন আকারে শিল্প স্থাপন এবং দেশের অবকাঠামোগত উন্নয়নের ক্ষেত্রেও পানির বিষয়টি প্রাধান্য দিতে হবে। কেননা উন্নয়ন যেমন জরুরি তেমনি শিল্প স্থাপনের কারণে নদীর পানি বা কোন অবকাঠামোগত উন্নয়নের ক্ষেত্রে যেন নদী ভরাট না হয় সে বিষয়ে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।

স্পিকার ভারতের পাহাড়ী এলাকার প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বলেন, সেখানে রাস্তার অধিকার জনগণের বেঁচে থাকার অধিকারের অন্যতম অংশ-যাতে করে জনগণ পাহাড়ী এলাকায় নির্বিঘ্নে যাতায়াত করতে পারে। সৃজনশীল কাজে আত্মনিয়োগ করে জনগণের কল্যাণের জন্য কাজ করে গেলে যে কোনো সমস্যা সহজেই সমাধান সম্ভব। জনকল্যাণমূলক রাষ্ট্র গড়তে তিনি সকলকে আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে কাজ করে যাওয়ার আহবান জানান ।

পানির অধিকার অনুধাবন করে বিইউপি এ ধরনের সেমিনার আয়োজন করায় স্পিকার বিইউপির ভিসিসহ সকল সদস্যকে ধন্যবাদ জানান। একই সাথে সৃষ্টিশীল যেকোনো কাজে বিইউপির প্রতি তাঁর দৃঢ় সমর্থন ব্যক্ত করেন।

লে. কর্ণেল (অব.) রবিউল আলমের সঞ্চালনায় সেমিনারে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ এনভায়রনমেন্টাল ল’ইয়ারস এসোসিয়েশন (বেলা) এর প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান। সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন বিইউপির ভিসি মে. জে. মোঃ সালাহউদ্দীন মিয়াজী, আরসিডিএস,পিএসসি ।

 

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এমএকে