ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 2 weeks ago

ভ্যালেন্টাইনস ডে’র চাপ সামলাতে লাস ভেগাস বিমানবন্দরে খণ্ডকালীন বিয়ের অফিস



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

ভ্যালেনটাইন্স ডেতে নতুন উদ্যোগ নিয়েছে লাস ভেগাস বিমানবন্দর। এ দিনে বিয়ে করার প্রচলন আগে থেকে থাকলেও এখন তার গতি দিন দিন বাড়ছে। বিয়ে মানুষের জীবনে অন্যতম স্মরণীয় ঘটনা।তাই এ স্মরণীয় মুহুর্তকে স্মৃতির পাতায় ধরে রাখতে হুমড়ি খেয়ে পড়ছে যুবক-যুবতীরা।

এ সমস্যার সমাধানে কাজ করছে লাস ভেগাসের বিমানবন্দর। লাস ভেগাসে প্রতিবছর ভ্যালেনটাইন্সে বিয়ের হিড়িক লাগে। ভালোবাসার কপোত-কপোতিরা নির্বিঘ্নে যাতে তাদের দিনটি স্মরণীয় করে রাখতে পারেন সে ব্যাপারে বিশেষ নজর দিচ্ছে লাস  ভেগাসের বিয়েবিষয়ক কর্মকর্তারা। খবর এ এফপির।

ক্লার্ক কাউন্টি  সিন সিটি ওয়েডিং প্রশাসক ব্যাগেজ কারোল  পপ আপ ম্যারিজ লাইসেন্স ব্যুরোর  অফিস বাসিয়েছেন বিমান বন্দরে। এখানে  দ্রুত বিয়ের রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন হবু দম্পতিরা।

শনিবারেই যে পরিমান আবেদন পড়েছে সেটা ১৭ ফেব্রুয়ারীর আগে তাদের কর্যক্রম শেষ করা সম্ভব হবে না বলে জানিয়েছেন কতৃপক্ষ। ভ্যালেনটাইনে বিয়ে করতে ইচ্ছুক দম্পতিরা যেন তাদের স্বপ্ন ভঙ্গ না হয় সেদিকে খেয়াল রাখছেন সিন সিটি  ওয়েডিং।

আমরা এ বিষয়টি নিয়ে বেশ আগ্রহী । এ বিষয়টা নিয়ে বেশ চাপ অনুভব করছিলাম আমরা। সে কারণে আমরা দ্রুত লাইসেন্স দেবার ব্যবস্থা করেছি। বিষয়টা ঝামেলা মুক্ত হবে এবং সবার জন্য সুবিধাও হবে।

লাস ভেগাস জুয়ার শহর হিসেবে পরিচিত। এখানে সারা বিশ্বের পেশাদারী জুয়ারিরা এখানে ভিড় জমান। মদ্য পানে ব্যস্ত থাকেন। ভ্যালেটাইন্স ডে তারা বিয়ের বিষয়টা দ্রুত চান।

প্রতি বছর প্রায় ৮০ হাজার বিয়ের লাইসেন্স জমা পড়ে। ২ বিলিওন ডলার এই লাইসেন্সের জন্য ব্যয় হয়। শুধুমাত্র ভ্যালেনটাইয়ে বিয়ের জন্য দেড় হাজার লাইসেন্স জমা পড়ে।

সিন সিটি ওয়েডিং পপ আপ ম্যারেজ অফিস মাত্র ৭৭ ডলারে বিয়ের লাইসেন্স দিচ্ছে।বিশ্বে  ভ্যালেনটাইনে  বিয়ের যে কয়টি জায়গা বিখ্যাত ,তার মধ্যে লাস  ভেগাস অন্যতম।

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/ আই এইচ