ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 2 months ago

নয়া ফতোয়া, যেখানে বিয়েতে গান বাজালেই বয়কট!



বাংলা রিপোর্ট ডেস্ক

দারুল উলুম দেওবন্দের ফতোয়ার কয়েকদিন পরই মুসলিম মহিলাদের জন্য জারি হল একগুচ্ছ নয়া ফতোয়া। ধর্মগুরুর দেয়া ফতোয়া না মানলে সামাজিকভাবে বয়কট করার ডাক দেয়া হয়েছে। বিয়েতে গান বাজালেই সামাজিক বয়কট করা হবে বলে ফতোয়ায় বলা হয়েছে।

 

 

জম্মু-কাশ্মীরের কিস্তওয়ার জেলার ধর্মীয় সংগঠন ইসলামী মাজিলিস-ই-শৌরা এ ফতোয়া জারি করেছে। যেখানে বলা হয়েছে যে, মুসলিম সমাজের কোনো বিয়ের অনুষ্ঠানে গান বাজানো চলবে না। একইসঙ্গে বিয়েতে কোনো ধরনের সঙ্গীতানুষ্ঠানও করা চলবে না।

 

 

স্কুলের কো-এডুকেশন বা ছাত্রছাত্রীদের একসঙ্গে লেখাপড়ার উপরেও জারি করা হয়েছে নিষেধাজ্ঞা। শুধু তাই নয়, একা মহিলাকে বাড়ির বাইরে বা দোকান বাজারে যাওয়ার ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ইসলামিক সংগঠনটি।

 

 

এসব ফতোয়া অমান্য করা হলে সেই সব ব্যক্তিকে সামাজিক বয়কট করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এক পাতার ফতোয়াতে আরও বলা হয়েছে যে, কোনো পরিবার বিয়ের অনুষ্ঠানে মাইকে গান বাজালে বা কোনও সঙ্গীতানুষ্ঠানের আয়োজন করলে সেই পরিবারকে সামাজিকভাবে বয়কট করতে হবে।

 

 

ছাত্রছাত্রীদের একসঙ্গে লেখাপড়া করা ইসলামিক আইনের বিরোধী। সেই কারণে স্কুল বা টিউশনে যাতে ছেলেমেয়ে একসঙ্গে না বসে সেদিকেও লক্ষ্য রাখার কথা বলা হয়েছে ফতোয়ায়। মোবাইল ফোন বা ইন্টারনেট ব্যবহারের ক্ষেত্রেও বিধিনিষেধ চাপিয়েছে ইসলামী মাজিলিস-ই-শৌরা।

 

 

গত সপ্তাহে মহিলাদের চুল কাটা ও আইব্রোর ওপর ফতোয়া জারি করে দারুল উলুম দেওবন্দ৷ তাদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, আইব্রো প্লাক করা ইসলাম-বিরোধী। সেই সঙ্গে তারা অকারণে চুল কাটাকেও অবৈধ বলেছে।

বাংলা রিপোর্ট/এমআর