ব্রেকিং নিউজঃ

মানবতাবিরোধী অপরাধে বসনিয়ার ‘সাক্ষাৎ শয়তান’ রাতকো ম্লাদিচের যাবজ্জীবন  ***  দ. কোরিয়ায় পালাতে গিয়ে সহকর্মীদের গুলিতে নিহত উ. কোরীয় সৈনিক  ***  জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট হিসেবে ন্যানগাওয়ের শপথ শুক্রবার, আজ রাতে পালাতে পারেন মুগাবে  ***  কুড়িগ্রামে মৌমাছির কামড়ে ৩৭ জন শিক্ষার্থীসহ আহত অর্ধশতাধিক  ***  কুষ্টিয়ায় লিপু হত্যা : ২ আসামির মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত  ***  লেবাননের প্রধানমন্ত্রী হারিরির পদত্যাগ স্থগিত  ***  আগামী বছর ১ ফেব্রুয়ারি থেকে এসএসসি পরীক্ষা শুরু হবে  ***  সরকার নিজের অপকর্মের দায় অন্যের ওপর চাপাচ্ছে: রিজভী  ***  সংসদ নির্বাচনে প্রয়োজনে সেনাবাহিনী নামানো হবে: ইসি শাহাদাত  ***  বিপিএল-এ দু’দিনের বিরতি; ২৪ নভেম্বর থেকে তৃতীয় পর্ব শুরু হবে চট্টগ্রামে
Published: 6 months ago

মুনের ক্ষমতা গ্রহণ, কিমের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা



বাংলা রিপোর্ট ডেস্ক

দক্ষিণ কোরিয়ার নতুন প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইনের ক্ষমতা গ্রহণের কয়েক ঘণ্টা পরেই প্রতিবেশী উত্তর কোরিয়া আবারো দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে। উত্তর কোরিয়ার পশ্চিম উপকূলীয় এলাকা থেকে একটি দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালানো হয়েছে বলে বিবিসির অনলাইন প্রতিবেদনে জানানো হয়।

দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনী বলছে, উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর কুসং থেকে উৎক্ষেপণের পর সেটি প্রায় সাতশ কিলোমিটার পর্যন্ত উড়েছে।

জাপান বলছে, অন্তত ৩০ মিনিট উড়ে যাওয়ার পর ক্ষেপণাস্ত্রটি জাপান সাগরে গিয়ে পড়েছে।

জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করে পিয়ংইয়ং এ পর্যন্ত অন্তত পাঁচটি পরমাণু পরীক্ষা চালিয়েছে এবং দেশটি দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করছে। তবে চলতি বছরেই উত্তর কোরিয়া বেশ কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালালো যা যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে উত্তেজনা তৈরি করেছে। যদিও গত মাসে উৎক্ষেপণের পর দুটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা ব্যর্থ হয়েছে।

এদিকে দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান সর্বশেষ পরীক্ষার তীব্র সমালোচনা করেছে। দক্ষিণ কোরিয়ার নতুন প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের জরুরী সভা আহবান করেছেন বলে জানা গেছে। নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর থেকে প্রতিবেশী উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক নমনীয় করার ইঙ্গিত দিয়ে আসছিলেন মুন জায়ে। স্বাভাবিক ভাবেই তার ক্ষমতা গ্রহণের সঙ্গে সঙ্গে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা নতুন করে চাপে ফেলবে দক্ষিণের নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে।

এর আগে ৫ এপ্রিল জাপান সাগরে একটি দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে উত্তর কোরিয়া। দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় বন্দর সিনপো থেকে ক্ষেপণাস্ত্রটি নিক্ষেপ করা হয়েছিল বলে দাবি করেছিল দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র। তার আগে ৬ মার্চ উত্তর কোরিয়ার চীন সীমান্তের নিকটবর্তী তংচ্যাং-রি অঞ্চল থেকে জাপান সাগরে চারটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়। তখন দক্ষিণ কোরিয়ার বার্তা সংস্থা ইয়োনহ্যাপ জানায়, ক্ষেপণাস্ত্রগুলো সম্ভবত আন্তঃমহাদেশীয় দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র, যা যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখণ্ডে আঘাত হানতে সক্ষম।

উত্তর কোরিয়ার যে কোনো ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র বা পারমাণবিক পরীক্ষার ওপর জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। কিন্তু মার্চ মাসেও দেশটি চারটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে, যেগুলো ১০০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে জাপানের জলসীমায় গিয়ে পড়েছিল। সেই সময়ে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রী রেক্স টিলারসন চীনে সফর করছিলেন।

পারমাণবিক ও দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র কার্যক্রম চালানোর জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা দেশগুলো এবং জাতিসংঘ বেশ কয়েকবার নিষেধাজ্ঞা জারি করলেও ওই কার্যক্রম থেকে সরে আসেনি উত্তর কোরিয়া। সূত্র: বিবিসি

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/এইচআর