ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 4 months ago

উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে যুদ্ধ বেধে যেতে পারে : দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের হুশিয়ারি



দক্ষিণ কোরিয়ার নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মুন জেই বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে যুদ্ধ বেধে যাবার সম্ভাবনাই বেশি। তিনি বলেন, উত্তর কোরিয়ার সাম্প্রতিক ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের কারণে বিশ্বশান্তি বিনষ্ট হবার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। প্রেসিডেন্ট মুন প্রেসিডেন্টসিয়াল ব্লু লী হাউসে বলেন, বাস্তবতা হলো (উত্তর লিমিট লাইন/এনএলএন) ও সামরিক ডির্মাকেশন লাইন বরাবর সামরিক সংঘর্ষ বাধার সমূহ সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

ইয়ানহাপ নিউজ এজেন্সি সূত্রে জানা গেছে, প্রেসিডেন্ট মুন জেই প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় পরিদর্শনকালে বলেন, “আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে সঙ্গে নিয়ে আমরা উত্তরের বিরুদ্ধে শক্ত অবস্থানে যাবো।”

তিনি আরও বলেন, সেনাবাহিনীর যথেষ্ট ক্ষমতা আছে এবং উত্তরের বিরুদ্ধে হামলা প্রস্তুত রয়েছে।

 

উত্তর কোরিয়া ৪ দিন আগে ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষার দাবি করে বলেন, এই ক্ষেপণাস্ত্র উচ্চ পর্যায়ের ক্ষমতাসম্পন্ন বা দূর হামলা করতে সক্ষম।

প্রেসিডেন্ট বলেন, এই ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সিদ্ধান্তের অবমাননা এবং বিশ্বশান্তি ও স্থিতিশীলতার জন্য ‘হুমকি’। আমরা কখনও উত্তর কোরিয়ার এই ধরনের হুমকি বরদাস্ত করবো না।

দক্ষিণ কোরিয়ায় ইউএসের ২৮,৫০০ সৈন্য মোতায়েন করার কয়েক ঘণ্টা পর মি. মুন এ ধরনের বক্তব্য প্রদান করেন। তিনি বলেন, আমরা উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে অবরোধ ও আলোচনা- এই দুই পথ খোলা রাখতে চাইছি।

দুই কোরিয়াকে একত্রীকরণ সংক্রান্ত দক্ষিণ কোরিয়ার মন্ত্রী লী-ডাক হেইং বলেন, সরকারের মূল অবস্থান হলো সরকার দক্ষিণ ও উত্তরের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থা পুন:স্থাপন করতে চান।

 

তিনি আরও বলেন, ‘ইউনিফিকেশন মন্ত্রণালয় অভ্যন্তরীণভাবে এটা মনে করে তবে সরকারিভাবে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি।’

যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূ-খণ্ডে হামলা চালাতে সক্ষম, এমন ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করেছে উত্তর কোরিয়া সেক্ষেত্রে কোনো রাখ-ঢাক করেনি। উত্তর কোরিয়ার প্রধান ঘনিষ্ঠা চীনসহ কারো নিজেদের এক্ষেত্রে তোয়াক্কা করছে না।

বিচ্ছিন্ন উত্তর কোরীয় নেতা দাবি করেন যে, তারা সফলভাবে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করেছেন এবং এহেনকাল থেকে প্রমাণিত হয় যে, এটি পারমাণবিক অস্ত্র বহন করতে সক্ষম। উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া ১৯৫০-৫৩ সালে যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ে। সেটি সমঝোতার মাধ্যমে অবসান হলেও এ উভয়ের মধ্যে শান্তিচুক্তি সম্পাদিত হয়নি।

দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট ইউকে অবলম্বনে রেজা আফসারী