ব্রেকিং নিউজঃ

Published: 3 months ago

কান চলচিত্র: দক্ষিণ কোরিয়ার ছবি” ওকযা” নিয়ে নিয়ে বিতর্কের ঝড়



বাংলা রিপোর্ট ডেস্ক

‘কান’ একটি উৎসবের নাম। অনন্দধ্বণি প্রকাশের রূপালি অনুষ্ঠান। চলচ্চিত্র যাচাই ও বিচার মানদন্ডে রূপায়িত করার রঙিন প্লাটফর্ম । প্রতিবারের মত এবারও ফ্রান্সের ‘কান’-এ ধুমছে চলছে এই উৎসব। এই উৎসবের রঙ ছড়িয়ে গেছে পৃথিবীর আনাচে- কানাচে চলচ্চিত্র প্রেমির মন- হৃদয়ে।

এবারের ‘কান’ চলচ্চিত্রে নেটফ্লিক্স কে নিয়ে আলোচনা সমালোচনা ঝড় বয়ে যাচ্ছে। এবারের ‘কান’ চলচ্চিত্র উৎসবে বোঙ জুন হো’র ‘ওকযা’ ছবিটির প্রিমিয়ার শো করেছে।

কান উৎসবের পরিচালক ও প্রধান বিচারক ‘পেড্রো আরমোডেভোর’ বলেন, ‘ নেটফ্লিক্সের ’ স্বপ্ন ‘দুঃস্বপ্নে’ পরিণত হয়েছে। তিনি বলেন, আমি ভেবে পাচ্ছিনা চলচ্চিত্র চরিত্র ব্যতিত কোন ছবি কানের ‘পালমে ড’অর’ পুরস্কারের জন্য বিবেচিত হতে পারে?

এই ছবিটি বিধ্বংসি চরিত্রের যা কান উৎসবের পর্দায় ওকযা’র চিত্র ভেসে আসতেই নিন্দাসূচক ‘না’ ধ্বণিতে কানের দশর্ক শ্রোতা ভেঙে পড়ে। দর্শক শ্রোতার দ্বিতীয় কর্কশ ধ্বনি প্রতিধ্বণিত হয় কানের পর্দায় ‘নেটফ্লিক্সের’ ‘লোগো’ ভেসে উঠতেই।

পরবর্তী ৫ মিনিট এই হট্রগোল কানের উৎসবে শব্দ ছড়ায়, সেই সঙ্গে এই ছবির অভিনেত্রী টিল্ডা সুইনটনস’র মুখ বিবর্ণ হযে যায়। বিচারকদের রেটিং-এ ছবিটিই দ্রুতই নীচে নেমে যায়।

কানের ওই কক্ষ মুক্ত আসামীর বিচিত্র দাঙ্গার মতো মনে হয় দর্শক শ্রোতার কাছে। আর কানের ওই পর্দায় দর্শকের চোখ আটকে যায় চক্ষুশূলের শুল দ্বারা।

নেটফ্লিক্সের এই ছবিটি মুক্তি পেলে দর্শক শ্রোতার কাছে আরও বিতর্কের রঙ ছড়াবে। ‘ওকযা’ ছবিটি ‘জোন হো’ ও ‘জন রনসন‘ এর যৌথ কাহিনী, যা দক্ষিণ কোরিয়ার গাংওন প্রদেশের গভীর জঙ্গলের বাসিন্দা একটি ছোট্ট মেয়ের গল্প। এই মেয়ের নাম ‘মিজা’ এবং এই চরিত্রে অভিনয় করেছেন ‘অহন সিইও হিওন’। ‘মিজা’ কর্পোরেট পুঁজিবাদের একটি পশুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে চলেছে। সে লাকি মিরান্ডো ও তার অন্তরঙ্গ বন্ধু ‘ওকযা’ কে রক্ষার চেষ্টা নিয়ে ছবিটির গল্প গড়ে উঠেছে।

বাংলা রিপোর্ট ডটকম/দ্যা ইন্ডিপেন্ডেন্ট অবলম্বনে রেজা অফসারী